Sunday, November 19, 2017
সংবাদ শিরোনাম
You are here: Home / সারাদেশ / কুষ্টিয়া চেচুয়ায় বাক প্রতিবন্ধীকে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ
অপমান সইতে না পেরে গলাই ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

কুষ্টিয়া চেচুয়ায় বাক প্রতিবন্ধীকে জোর পূর্বক ধর্ষণের অভিযোগ
অপমান সইতে না পেরে গলাই ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা

ছবিঃ নিহত আশা

এম এ সামাদ মৃধাঃ কুষ্টিয়া পৌরসভার জগতি চেচুয়া বাক প্রতিবন্ধী আশা(১৮) মাঠের মধ্যে বেলা ১১ টার সময় জোরপূর্বক ধর্ষন করেছে পাথর মিস্ত্রী আনোয়ার হোসেন ওরফে মিলন। কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে ৩ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই বাক প্রতিবন্ধী আশা মৃত্যুর কোলে ঢোলে পরে। জানাযায়, চেচুয়া গ্রামের আমিরুল ইসলামের মেয়ে বাক প্রতিবন্ধী আশা বেলা ১০ টার দিকে বাড়ির পাশে মাঠের মধ্যে ছাগল চড়াতে গেলে। প্রতিবেশী আমানের বাড়িতে ভাড়া থাকা নাটোরের জানুর ছেলে নরপশু আনোয়ার হোসেন ওরফে মিলন এই প্রতিবন্ধীকে জোরপূর্বক ধর্ষনের চেষ্টা করে। এসময় প্রতিবন্ধী আশার বাড়ির পাশের প্রতিবেশী সামছুদ্দিনের ছেলে বাবলু আশার আত্মচিৎতকার শুনে দৌড়ে গিয়ে নরপশু আনোয়ার কে ধরার চেষ্টা করে। আনোয়ার পালিয়ে যায়। আশার মা লতা খাতুন বলেন, আমার মেয়ে ইশারা করে আমাকে হাত ধরে মাঠে নিয়ে যায় ও ইশারায় বুঝায় মুখ চেপে ধরে ঘঠনার বিবরণ দেয় ও লম্পট আনোয়ারের বাড়ী দেখায়। পরে বাড়িতে চলে আসি আমরা। হঠাৎ করে ঘরের দরজা বন্ধ দেখে আশাকে ডাকাডাকি করি ঘর খুলে না পরে ঘরে ঢুকে দেখি আশা গলাই ফাঁস নিয়েছে। তারাতারি তড়িঘড়ি করে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসারত অবস্থায় মারা যায়। এই ঘটনাই পুলিশ ভাড়াটিয়ার বাড়ির মালিক আমানকে খোজাখুজি করছেন।

ছবিঃ নিহতের পরিবার

বাড়ির মালিক আমান পলাতক রয়েছে। আমানের স্ত্রী মমতাজ খাতুন ও লম্পট আনোয়ারের স্ত্রী চায়না খাতুনকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে মডেল থানায় নিয়ে এসেছে। এলাকাবাসী ধর্ষণের চেষ্টাকারী আনোয়ারের গ্রেফতারের দাবীতে ক্ষোভে ফুসে উঠেছে। এই ব্যাপারে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ(অপারেশন) ওবায়দুর শেখ জানান, ধর্ষণের চেষ্টার খবর পেয়েছি এব্যাপারে কুষ্টিয়া মডেল থানায় তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত আনোয়ারকে না পাওয়ায় তার স্ত্রী চায়না ও বাড়ির মালিক আমানের স্ত্রী মমতাজকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্যে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত বাকপ্রতিবন্ধী আশার লাশ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালের মর্গে ময়না তদন্তের জন্যে রাখা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top