Sunday, November 19, 2017
সংবাদ শিরোনাম
You are here: Home / জাতীয় / ভাদালিয়া স্কুল ছাত্র আকাশকে হত্যার চেষ্টা আটক ২

ভাদালিয়া স্কুল ছাত্র আকাশকে হত্যার চেষ্টা আটক ২

ছবিঃ হত্যা চেষ্টার মূল পরিকল্পনাকারী একরাম

স্টাফ রিপোর্টারঃ কুষ্টিয়া সদর উপজেলার ভাদালিয়া সস্তিপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণীর ছাত্র আকাশ(১৪) কে গতকাল দুপুর ২ টায় চরমপন্থী সন্ত্রাসী একরাম, মামুন, আলামিন, বিপ্লব ও হাসানসহ ৫-৬ জন অস্ত্র দিয়ে বাশ বাগানের সামনে হত্যার উদ্দেশ্যে দুই পায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে দুই পায়ে কোপ মারলে দুই পা কেটে রক্তাত্ব হয়ে গেলে আকাশের আত্মচিতকারে স্থানীয় জনতা এসে আকাশকে রক্তাত্ব অবস্থায় উদ্ধার করে।

ছবিঃ স্কুল ছাত্র আকাশ

দুই সন্ত্রাসী মামুন ও আলামিনকে জনতা ধরে দহখোলা পুলিশ ক্যাম্পের এএসআই আশরাফের নিকট সোপর্দ করে। ঘটনার সূত্রে জানাযায়, সস্তিপুর গ্রামের মান্নানের ছেলে একরামের সাথে দীর্ঘদিন প্রতিবেশি হাজী কুদ্দুস মুন্সীর বিরোধ চলে আসছিলো। এরই জের ধরে মান্নান কুদ্দুস মুন্সীর ছেলে আকাশকে হত্যা করার জন্য বাশগ্রাম এলাকা থেকে চরমপন্থি বাহিনীর সদস্যদেরকে ভাড়া করে নিয়ে আসে বলে হাজী কুদ্দুস মুন্সী জানান। জনতা পুলিশের কাছে যেই দুই সন্ত্রাসীকে ধরিয়ে দিয়েছে তারা হলো, কুমারখালী থানার বাগুলাট ইউনিয়নের ভরুয়াপাড়ার জোয়াদ আলীর ছেলে মামুন ও একই থানার বানিয়াকরি গ্রামের বারিকের ছেলে আলামিন। এসময় পাকিয়ে যায়, সস্তিপুর গ্রামের মান্নানের ছেলে একরাম ও কুমারখালী উপজেলার বানিয়াকরি গ্রামের কাসেমের ছেলে হাসান ও ভরুয়াপাড়া গ্রামের সমর আলীর ছেলে বিপ্লব বলে এলাকাবাসী জানান।

ছবিঃ হত্যা চেষ্টাকারী আটক মামুন ও আলামিন

এই ব্যাপারে দহখোলা ক্যাম্পের এএস আই সোহাগের সাথে কথা বললে তিনি জানান, ঘটনার সাথে জড়িত আলামিন ও মামুন দহখলা ক্যাম্পে আটক রয়েছে এবং পলাতকদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আটককৃত মামুন ও আলামিনের বিরুদ্ধে কুষ্টিয়া মডেল থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানাযায়।

Print Friendly, PDF & Email

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top