Sunday , June 26 2022
You are here: Home / অন্যান্য / ফরিদপুরে চাইনিজ কুড়াল-চাকু হাতে শ্রেণিকক্ষে দুই ছাত্র!

ফরিদপুরে চাইনিজ কুড়াল-চাকু হাতে শ্রেণিকক্ষে দুই ছাত্র!


 

ফরিদপুর প্রতিনিধি : ফরিদপুরের নগরকান্দার বানেশ্বরদি উচ্চ বিদ্যালয়ের শ্রেণিকক্ষে চাইনিজ কুড়াল ও চাকু নিয়ে প্রবেশের ঘটনা ঘটেছে। দশম শ্রেণির দুই ছাত্রের হাতে অস্ত্র দেখে শিক্ষার্থীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। পরে তাদের কাছ থেকে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করেন শিক্ষকরা।

বুধবার (১ জুন) বিদ্যালয় চলাকালীন দশম শ্রেণির কক্ষে এ ঘটনা ঘটে।এলাকাবাসী ও বিদ্যালয় সূত্রে জানা যায়, স্কুল চলাকালীন প্রতিদিনের মতো শ্রেণিকক্ষে প্রবেশ করে ওই দুই ছাত্র। পরে সহপাঠীরা তাদের কাছে দুটি চাইনিজ কুড়াল ও দুটি চাকু দেখতে পায়। বিষয়টি জানাজানি হলে সবার মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। তাৎক্ষণিকভাবে দশম শ্রেণির কয়েকজন ছাত্র বিষয়টি স্কুলের সহকারী শিক্ষক রুমেল খন্দকারকে জানান। তখন শিক্ষক রুমেল খন্দকার দুই ছাত্রের কাছ থেকে অস্ত্রগুলো উদ্ধার করেন। কিন্তু অভিযুক্তদের কোনো ধরনের শাসন এমনকী প্রশাসনকে না জানিয়ে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

স্থানীয়রা জানান, অভিযুক্ত ওই দুই ছাত্র প্রধান শিক্ষকের নিকটাত্মীয়। যে কারণে কোনো আইনি ব্যবস্থা না নিয়ে প্রধান শিক্ষক মজিবর রহমান ও সহকারী শিক্ষক রুমেল খন্দকার বিষয়টি এড়িয়ে যান।এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক রুমেল খন্দকার জানান, তাৎক্ষণিকভাবে তাদের কাছ থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয় এবং বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে জানানো হয়।বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মজিবুর রহমান জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা হয়ে গেছে। তারপরও আমি পরেরদিন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানিয়েছি।’

এ বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা ফজলুল হক জাগো নিউজকে বলেন, ‘ঘটনার পরের দিন স্কুলের প্রধান শিক্ষক ঘটনাটি মোবাইলে জানান। স্কুলের মিটিং ডেকে এর সমাধান করা বলেও আমাকে জানিয়েছেন।’ নগরকান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) হাবিল হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, এ ধরনের কোনো অভিযোগ পাইনি। পেলে তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।জানতে চাইলে নগরকান্দা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) এন এম আব্দুল্লাহ আল মামুন জাগো নিউজকে বলেন, ঘটনার পরের দিন মৌখিকভাবে ঘটনাটি জেনেছি। তবে এ বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ পাইনি। তারপরও ঘটনাটি তদন্ত করে এ বিষয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

About দৈনিক সময়ের কাগজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top
error: Content is protected !!