Tuesday , August 9 2022
You are here: Home / খুলনা ও বরিশাল / সাতক্ষীরা সোনার বাংলা হাইস্কুলের ক্লাসরুমেই সিগারেটের ধোঁয়া!
সাতক্ষীরা সোনার বাংলা হাইস্কুলের ক্লাসরুমেই সিগারেটের ধোঁয়া!

সাতক্ষীরা সোনার বাংলা হাইস্কুলের ক্লাসরুমেই সিগারেটের ধোঁয়া!

আমিরুজ্জামান বাবু, সাতক্ষীরা:

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সোনার বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে স্কুল ড্রেস পরিহিত অবস্থায় শ্রেণি কক্ষের ভিতরে একাধিক ছাত্রছাত্রীর বিরুদ্ধে ধূমপান করার অভিযোগ উঠেছে। সেই দৃশ্য মোবাইল ফোনে ধারণ করার পর তা ছড়িয়ে দেওয়া হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। ভিডিওটি কবে, কখন ধারণ করা হয়েছে জানা না গেলেও এ ঘটনায় নিন্দার ঝড় উঠেছে গোটা এলাকায়। স্কুল কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চরম গাফিলতির অভিযোগ তুলছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তবে এঘটনা এই প্রথমবার নয়, এর আগেও স্কুলের ভিতরে একাধিক ছাত্র-ছাত্রীর ধূমপানের বিষয়টা প্রকাশ্যে এসেছিল। স্থানীয়দের অভিযোগ প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমানের গাফিলতির কারণে এই ধরণের ঘটনা বারবার ঘটছে ওই স্কুলে। আর এই ঘটনার প্রভাব পড়েছে স্কুলের অন্যান্য শিক্ষার্থীদের মাঝেও।
ফেসবুকে ভাইরাল সেই ভিডিওটি এসেছে পত্রদূতের হাতে। ১ মিনিট ৭ সেকেন্ডের ভিডিওটি যাচাই করেছে পত্রদূত। ভিডিওটিতে দেখা যায়, সোনার বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ১০ম শ্রেণির চারজন ছাত্র-ছাত্রী স্কুলের শ্রেণিকক্ষের ভিতরে স্কুল ইউনিফর্ম পরা অবস্থায় ধূমপান করছেন। ওই চার শিক্ষার্থীর মধ্যে একজন ছাত্রী ও দুইজন ছাত্রকে জ্বলন্ত সিগারেট টানতে দেখা যায়। এ সময় পাশে থাকা আরেক ছাত্রী হাস্যোজ্জ্বল ভঙ্গিতে ভিডিও কলে কথা বলছিলেন।
তাদের ধূমপানের সেই দৃশ্যটি ওই ভিডিও কলের মাধ্যমে স্কিন রের্কড করা হয়। পরে এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অজ্ঞাত পরিচয় কেউ ছড়িয়ে দেয়।
এদিকে বিষয়টা জানাজানি হলে তোপের মুখে পড়েছেন ওই বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকসহ অন্যান্যরা। স্থানীয়দের অভিযোগ, বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষকসহ বিদ্যালয় সংশ্লিষ্টদের গাফিলতির কারণে মাদকসেবীদের আখড়ায় পরিণত হয়েছে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার সোনার বাংলা মাধ্যমিক বিদ্যালয়। বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে বিদ্যালয়টিতে অধ্যায়নরত কিশোর-কিশোরীরা একসাথে বিভিন্ন সময় মাদকদ্রব্য (ধূমপান) সেবন করেন। এবিষয়ে বিদ্যালয়টির অন্যান্য শিক্ষার্থীসহ অভিভাবক মহলের পক্ষ থেকে অভিযোগ জানানো হলেও শিক্ষকরা কখনও গুরুত্ব দেননি। বরং বিদ্যালয়টিতে অধ্যায়নরত মাদক সেবনকারী ছেলেমেয়েদের থেকে সুবিধা আদায় করতেন বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।
তারা আরও বলেন, স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের পাশাপাশি বিদ্যালয়টিতে মাদকাসক্তদের অবাধ বিচরণসহ অশ্লীল বাক্যালাপে বর্তমানে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছেন তারা। একারণে বিদ্যালয়টির ভাবমূর্তি রক্ষায় সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরের হস্তক্ষেপ কামনা করেন তারা।
এব্যাপারে বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক আমিনুর রহমান নিজের দায়িত্বে গাফিলতির কথা অস্বীকার করে বলেন, ‘এ বিষয়টা সম্পর্কে আমরা কোন কিছু জানিনা। খোঁজখবর নিয়ে বলতে পারবো।’
এব্যাপারে সাতক্ষীরা জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা এসএম আব্দুল্লাহ্ আল মামুন বলেন, ‘বিষয়টা খুব দুঃখজনক যে, বিদ্যালয় চলাকালীন সময়ে শ্রেণিকক্ষের ভিতরে ছেলেমেয়ে একসাথে ধূমপান করে। এবিষয়ে যারা যারা জড়িত তাদের বিরুদ্ধে অব্যশই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। আর কোন শিক্ষকের গাফিলতি থাকলেও তাকে বিভাগীয় শাস্তির আওতায় আনা হবে।’

About দৈনিক সময়ের কাগজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top
error: Content is protected !!