Tuesday , August 9 2022
You are here: Home / জাতীয় / বৃদ্ধ হাজিদেরও মাথায় লাগেজ তুলতে হচ্ছে বিমানবন্দরে
বৃদ্ধ হাজিদেরও মাথায় লাগেজ তুলতে হচ্ছে বিমানবন্দরে

বৃদ্ধ হাজিদেরও মাথায় লাগেজ তুলতে হচ্ছে বিমানবন্দরে

নিজস্ব প্রতিবেদক : হজ শেষে এখনও দেশে ফিরছেন হাজিরা। বিমানবন্দরের ভেতরে দ্রুত ইমিগ্রেশন, লাগেজ সংগ্রহ করা, কাস্টম শেষ হচ্ছে। হাজিরা বিমানবন্দরের ভেতরের ব্যবস্থাপনায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করলেও গাড়িতে উঠতে এসে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুটি ক্যানোপিই গ্রিল দিয়ে আটকে দেওয়া, ফলে ট্রলি নিয়ে পার্কিংয়ে যেতে পারছেন না হাজিরা। এমন পরিস্থিতিতে অনেক বৃদ্ধ হাজিকেও মাথায় লাগেজ তুলতে হচ্ছে।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে টার্মিনালের ভেতরে ট্রলি নিয়ে সংকটে পড়তে হচ্ছে না কোনও যাত্রীকে। সম্প্রতি নতুন ট্রলি ও ট্রলিম্যানের সংখ্যা বাড়ানোয় টার্মিনালের ভেতরে ট্রলি নিয়ে কোনও দুর্ভোগ নেই। তবে বিমানবন্দরের দুটি ক্যানোপিতেই গ্রিল দিয়ে আটকে দেওয়ায় কোনও যাত্রীর পক্ষে ট্রলি নিয়ে পার্কিংয়ে যাওয়া সম্ভব না। অন্যদিকে ক্যানোপির আয়তন ছোট হওয়ায় ড্রাইভ ওয়েতে দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হয়। অনেকেই দ্রুত গাড়িতে উঠতে পার্কিংয়ে যেতে লাগেজ মাথায় তুলে বের হয়ে যান। সবচেয়ে বেশি দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন অসুস্থ, বৃদ্ধ, নারী এবং বেশি মালামাল নিয়ে আসা যাত্রীরা। সম্প্রতি বৃদ্ধ হাজিদেরও মাথায় লাগেজ তুলতে দেখা গেছে।

হাজি সৈয়দ আব্দুল মান্নান বলেন, ট্রলিতে লাগেজ নিয়ে পার্কিংয়ে গিয়ে গাড়িতে উঠবো। এই সহজ কাজটিও এখানে জটিল করে রেখেছে। বয়স্ক মানুষগুলো কষ্ট করে লাগেজ মাথায় নিয়ে বের হয়ে যাচ্ছে। ক্যানোপিতে গাড়ির যে পরিমাণ লম্বা লাইন, তাতে অপেক্ষা করলে একঘণ্টাও লেগে যেতে পারে। তাই সবাই নিজেরাই পার্কিংয়ে যেতে চান, সেটাও দুর্ভোগ।

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের নির্বাহী পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ কামরুল ইসলাম বলেন, বিমানবন্দরের বহুতল কার পার্কিং ভবনে ট্রলি নেওয়ার সুযোগ আছে। টার্মিনালের ভেতরে সেই সাইন (দিকনির্দেশনা) দেওয়া আছে। যে কেউ চাইলে বহুতল কার পার্কিং ভবনের ভেতরে ট্রলি নিয়ে সেখান থেকে গাড়িতে উঠতে পারবেন।

তবে বাস্তবতা হচ্ছে, হাজি কিংবা যাত্রীদের স্বজনরা কোথায় গাড়ি পার্কিং করেছেন তা তারা জানেন না। ফলে টার্মিনালের ভেতরে বহুতল কার পার্কিংয়ে ট্রলি নেওয়ার সাইন থাকলেও সেটি কোনও কাজ আসবে না। টার্মিনালের সামনে একবার পার্কিং চার্জ দিয়ে পুনরায় আবার বহুতল কার পার্কিং ভবনে গেলে ব্যয় বেড়ে যাওয়ায় কেউ আগ্রহী হবেন না। এছাড়া অনেক হজযাত্রী একসঙ্গে বাসে চড়ে ঢাকার বাইরে যাবেন। তাদের বাস টার্মিনালের সামনে পার্কিং করা থাকে। ফলে বাসে চড়া হজযাত্রীদের ক্যানোপি থেকে লাগেজ মাথায় তুলেই বের করা ছাড়া কোনও উপায় নেই।

ধর্ম মন্ত্রণালয়ের তথ্যমতে, ১ আগস্ট পর্যন্ত দেশ ফিরেছেন ৪৪,৬৪১ জন হাজি। এরমধ্য বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিবহন করেছে ৫৩ শতাংশ, সৌদি এয়ারলাইন্স পরিবহন করেছে ৪২ শতাংশ, ফ্লাইনাস পরিবহন করেছে ৬ শতাংশ যাত্রী। মোট ফিরতি ফ্লাইট সংখ্যা ১২৪টি। বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৬৭টি, সৌদি এয়ারলাইন্স পরিচালিত ৫১টি, ফ্লাইনাস পরিচালিত  ৬টি।

About দৈনিক সময়ের কাগজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top
error: Content is protected !!