Saturday , November 26 2022
You are here: Home / জাতীয় / বিএনপি বাংলাদেশকে জঙ্গি রাষ্ট্রের দিকে নিয়ে যেতে চায় : হানিফ
বিএনপি বাংলাদেশকে জঙ্গি রাষ্ট্রের দিকে নিয়ে যেতে চায় : হানিফ

বিএনপি বাংলাদেশকে জঙ্গি রাষ্ট্রের দিকে নিয়ে যেতে চায় : হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, ২০০১ থেকে ২০০৬ সালে রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে বিএনপি বাংলাদেশকে ব্যর্থ রাষ্ট্রে পরিণত করেছিল। বাংলাদেশ বিশ্বে দুর্নীতিতে পর পর পাঁচ বার এক নম্বর রাষ্ট্র হিসেবে চিহ্নিত হয়েছে। জঙ্গিবাদের দেশ বানিয়েছিল। এখন বিএনপি নেতারা বলছে- টেক ব্যাক বাংলাদেশ। তারা বাংলাদেশকে আবারও জঙ্গিবাদের রাষ্ট্রের দিকে নিয়ে যেতে চায়। কিন্তু বাংলাদেশকে পিছনে নিয়ে যাওয়ার সুযোগ নেই।

শনিবার দুপুর ২টায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া শহরের নিয়াজ মুহাম্মদ স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

হানিফ বলেন, বাংলাদেশের মানুষ বিএনপির নেতৃত্বে অন্ধকারের দিকে যেতে চায় না। শেখ হাসিনা অন্ধকারে তলিয়ে যাওয়া দেশকে আলোয় উদ্ভাসিত করেছেন। শতভাগ মানুষের ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দিয়েছেন। দেশকে খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ করেছেন। বৈশ্বিক সংকটের মধ্যেও গত ১০ মাসে ৩৬ বিলিয়ন ডলার রফতানি হয়েছে। সংকট মেকাবেলা করে শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।

 

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে বাংলাদেশ ছিল হতাশা, ব্যর্থতার রাষ্ট্র। বিবিসি এক প্রতিবেদনে বলেছে, বিএনপি ক্ষমতায় থাকতে তারেক রহমান ১২৫টি জঙ্গিগোষ্ঠীকে পৃষ্টপোষকতা করেছিল। তারা বাংলাদেশকে উগ্র, মৌলবাদী রাষ্ট্র হিসেবে প্রতিষ্ঠা করেছিল। এই বিএনপি-জামায়াত নিজেরা রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে কোনো উন্নয়ন করেনি বরং দেশকে পিছিয়ে নিয়েছে। এখন আবার পিছনে নেয়ার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। কিন্তু বাংলাদেশের মানুষ পিছনে ফিরে যেতে চায় না।

হানিফ বলেন, বিএনপি নেতারা স্লোগান দেন ‘টেক ব্যাক বাংলাদেশ’। বিএনপি রাষ্ট্র ক্ষমতায় থাকতে দেশের মানুষের মাথাপিছু আয় ছিল ৬০০ ডলারের নিচে। আজ মাথাপিছু আয় ২৯০০ ডলার ছাড়িয়েছে। বাংলাদেশ চরম দরিদ্র দেশ থেকে আজ উন্নয়নশীল রাষ্ট্র হিসেবে স্বীকৃতি পেয়েছে।

বিএনপি-জামায়াত দেশের উন্নয়ন দেখতে চায় না উল্লেখ করে আওয়ামী লীগের এই সিনিয়র নেতা বলেন, শেখ হাসিনার নেতত্বে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত আয়ের দেশে পরিণত করার লক্ষ্য নিয়ে আওয়ামী লীগ কাজ করছে। বিশ্বের অর্থনীতিবিদরা বলছেন, দেশের উন্নয়নের এ ধারা অব্যাহত থাকলে ২০৩১ সালের মধ্যে আমরা মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবো। ঠিক এই সময়ে একাত্তরের পরাজিত শক্তি জামায়াত, তাদের দোসর বিএনপি দেশের উন্নয়ন-অগ্রগতি বাধাগ্রস্ত করার ষড়যন্ত্রে লিপ্ত হয়েছে।

ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি। সম্মেলন উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি র.আ.ম উবায়দুল মোকতাদির চৌধুরী এমপির সভাপতিত্বে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এডভোকেট কামরুল ইসলাম এমপি, সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মামুন স্বপন এমপি, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক প্রকৌশলী আব্দুস সবুর ও কেন্দ্রীয় সদস্য পারভীন সুলতানা কল্পনা।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আইন বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী এডভোকেট আনিসুল হক এমপি, কাপ্টেন অব. এবি তাজুল ইসলাম এমপি, বি.এম ফরহাদ হোসেন সংগ্রাম এমপি, এবাদুল করিম বুলবুল এমপি ও সংরক্ষিত মহিলা আসনের উম্মে ফাতেমা নাজমা বেগম এমপি।

সম্মেলনে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আল মামুন সরকার।

 

About দৈনিক সময়ের কাগজ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Scroll To Top
error: Content is protected !!